সাপ্তাহিক ছুটিতে দিল্লিতে কারফিউ

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লতে কারফিউ জারি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। বুধবার এ যাবতকালের মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ ১৭,২৮২ জন করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর এমন নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। এই কারফিউয়ের অধীনে অডিটরিয়াম, শপিং মল, জিম, স্পা বন্ধ থাকবে। সিনেমা হল এক তৃতীয়াংশ দর্শক নিয়ে চালু রাখার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আগে থেকে নির্ধারিত বিয়ের অনুষ্ঠানের মতো অত্যাবশ্যকীয় কর্মকাণ্ড অনুমোদন করা হবে কারফিউ পাসের মাধ্যমে। ঘরের বাইরে গিয়ে খাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে হোম ডেলিভারির অনুমোদন দেয়া হবে। সাপ্তাহিক মার্কেট বিধিনিষেধের আওতায় খোলা রাখার অনুমতি দেয়া হয়েছে।

এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি। এক ভিডিও বার্তায় অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেছেন, এই বিধিনিষেধ আপনাদের জন্য, আপনার জন্য এবং আপনার পরিবারের জন্য। এটা অপ্রাসঙ্গিক মনে হতে পারে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ চেইনকে ভেঙে দেয়ার জন্য এই বিধিনিষেধ অত্যাবশ্যক। তিনি আরো বলেন, হতাশাগ্রস্ত হবেন না। সাপ্তাহিক ছুটির দিনে সব অত্যাবশ্যকীয় সেবা অব্যাহত থাকবে। লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনীল বাইজাল ও শীর্ষ স্থানীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এ ঘোষণা দেন। উল্লেখ্য, এ যাবতকালের মধ্যে বুধবার একদিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সর্বোচ্চে পৌঁছে দিল্লিতে। এর মধ্য দিয়ে দেশে সবচেয়ে খারাপভাবে আক্রান্ত শহরের শীর্ষে উঠে এসেছে দিল্লি। এদিন কমপক্ষে ১০০ মানুষ মারাও গেছেন। সোমবার সেখানে করোনা পজেটিভের শতকরা হার ছিল ১২.৪। কিন্তু বুধবার তা বেড়ে প্রায় শতকরা ১৬ ভাগে দাঁড়ায়। বুধবারের আগে দিল্লিতে একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমিত হয়েছিলেন নভেম্বরে। সেই সংখ্যা ছিল ৮৫৯৩।

SHARE