শেরপুরের নকলায় গৃহবধূকে হত্যার দায়ে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় নকলা উপজেলার পাঠাকাটা ইউনিয়নের বারারচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ওই গৃহবধূ নিহত হন। নিহত গৃহবধূর নাম শারমিন আক্তার (৪০)। শারমিনের স্বামীর নাম জহিরুল ইসলাম রুবেল।
পুলিশ শারমিন হত্যার অভিযোগে প্রতিপক্ষের ৩ জনকে শুক্রবার রাতেই গ্রেপ্তার করে। তারা হলেন সুরুজ্জামান ও তার পুত্র মোজাম্মেল হক পুত্রবধূ ফরিদা ইয়াসমিন।

নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুশফিকুর রহমান মামলার বরাতে জানান, নিহত শারমিনের স্বামী রুবেলের সাথে সুরুজ্জামান গংদের দীর্ঘদিন ধরেই জমি নিয়ে বিরোধ ছিলো। শুক্রবার সন্ধ্যায় সেই বিরোধের জের ধরে ঝগড়া শুরু হলে সুরুজ্জামান ও তার লোকজন রুবেলের উপর চড়াও হলে। তা থামাতে যায় শারমিন। এ সময় সে মাটিতে পড়ে যান তিনি। বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি। পরে তাকে নকলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ নিয়ে মামলা হলে, মামলার প্রেক্ষিতেই ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

SHARE