ভোটার নেই, কর্মকর্তাদের অলস সময়

উপজেলা নির্বাচনের চতুর্থ ধাপে যশোরের ৮টি উপজেলার মধ্যে ৭টিতে আজ সকাল থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। তবে ভোটকেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি প্রায় শুণ্যের কোঠায়।

শহরের জিলা স্কুল, আশ্রম সরকারী প্রাইমারি স্কুল কেন্দ্র, যশোর ইন্সটিটিউট স্কুল কেন্দ্র, বাহাদুরপুর স্কুল কেন্দ্র, মাহামুদুর রহমান স্কুল কেন্দ্র, বিএড কলেজ কেন্দ্র, সেবাসংঘ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রসহ বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে সকাল ৯টা পর্যন্ত ভোটারদের উপস্থিতি ছিল না বললেই চলে। এই সমেয় কোন কোন কেন্দ্রে ৩-৪টির বেশি ভোট পড়েনি বলে জানান ভোটার সংশ্লিষ্টরা। কেন্দ্রগুলোতে ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা অলস সময় কাটাচ্ছেন- এমনটাই খবরে জানিয়েছে দৈনিক মানবজমিন।

বুথের বাইরে নিরাপত্তা কর্মীরাও বসে আছেন অসলভাবে। ভোট কেন্দ্রের নির্দিষ্ট সীমানার বাইরেও কোন লোকজনের আনাগোনা নেই। স্বাভাবিকভাবেই মনে হচ্ছে না এসব কেন্দ্রে আজ ভোট গ্রহণ চলছে।

যশোর জিলা স্কুল কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার আজিজুর রহমান জানান, সকাল সাড়ে ৮টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ৩ জন ভোটার ভোট প্রদান করেছেন। এই কেন্দ্রের মোট ভোটার। রাম কৃষ্ণ আশ্রম স্কুল কেন্দ্রে মোট ভোটার প্রায় ৩৮শ’। সকাল ৯টা পর্যন্ত এই কেন্দ্রে ভোট কাষ্ট হয়েছে মাত্র ২২টি। একই অবস্থা শহরের বাকি কেন্দ্র গুলোতেই। জেলার বাকি উপজেলা গুলোর চিত্রও একই রকম বলে জানান ভোট সংশ্লিষ্টরা।

কর্মকর্তারা বলছেন, ভোটের প্রতি সাধারণ ভোটারদের কোন আগ্রহ নেই। ফলে তারা ভোট কেন্দ্রে আসছেন না। ভোট দিচ্ছেন না। ভোটার না আসলে তো আমাদের কিছু করার নেই।