বাংলাভিশনে এবারো চাঁদরাতে সরাসরি মমতাজ

এবারো ঘটছে না ব্যত্যয়। এবারো গাইবেন তিনি। বলা হচ্ছে জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী মমতাজের কথা। এ শিল্পী গেল বেশ কয়েক বছর ধরেই স্যাটেলাইট চ্যানেল বাংলাভিশনে চাঁদরাতে শ্রোতা-দর্শককে সরাসরি গান শুনিয়ে আসছেন। সেই ধারাবাহিকতায় দেশে করোনা ভাইরাসের বর্তমান পরিস্থিতিতেও সরাসরি গান শোনানো থেকে পিছিয়ে থাকছেন না মমতাজ। তিনি নিশ্চিত করেছেন, এবারের রোজার ঈদেও চাঁদরাতে ইফতারির পর বাংলাভিশনের পর্দায় সরাসরি স্টুডিও থেকে সংগীত পরিবেশন করবেন। তার এবারের সরাসরি পর্বের নাম রাখা হয়েছে ‘হাতে লয়ে প্রেমের পুতুল’। এ সংগীতানুষ্ঠান প্রসঙ্গে মমতাজ বলেন, করোনার এই সময়কালে আমার অনেক পুরোনো অ্যালবামের গান নতুন করে শোনানোর সুযোগ হয়েছে।

সত্যি বলতে কী এর আগে সেসব গান কখনো সরাসরি কোনো টিভি অনুষ্ঠানে কিংবা স্টেজ শোতে পরিবেশন করা হয়নি। সেখান থেকে কিছু গান এবারের চাঁদরাতের শোতে গাইবো। এছাড়াও আধ্যাত্বিক গান, ভাব গানের পরিবেশনাতো থাকবেই। চাঁদরাতে সরাসরি গান পরিবেশন করার পরিকল্পনাটা মূলত বাংলাভিশনেরই। তাদের আয়োজিত এই শোটি দর্শকপ্রিয়তার পর বেশ কয়েকটি চ্যানেল আমাকে তাদের চ্যানেলে চাঁদরাতে গান করার প্রস্তাব দিয়েছে। কিন্তু আমি তাদেরকে বিনয়ের সঙ্গে না করে দিয়েছি। কারণ বাংলাভিশনের সঙ্গে এই অনুষ্ঠানের কারণে আমার একটি চমৎকার সমন্বয় হয়েছে। তারা তাদের মতো করে আমাকে স্বাধীনতা দিয়ে আয়োজনটি সফল করার চেষ্টা করে।

তাছাড়া এটি এখন অনেক দর্শকপ্রিয় একটি অনুষ্ঠানও বটে। সারা বছর এই অনুষ্ঠানটি দেখার জন্য অপেক্ষায় থাকেন দর্শকরা। মমতাজ জানান, তার মা উজালা বেগম মানিকগঞ্জে গ্রামের বাড়িতে রয়েছেন। সেখানেই তিনি ঈদের দিন সকালে তার সন্তানদের নিয়ে ঈদ উদযাপন করতে যাবেন। এদিকে করোনার এই ক্রান্তিকালে মমতাজ সমাজের অসহায় ও সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন নিজের ফান্ড থেকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে। তিনি আরো জানান, গত ২০শে মে তার সংসদীয় এলাকার বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের ড্রাইভারদের মধ্যেও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। আজ তার দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করার কথা রয়েছে।

SHARE