বংশালে গ্যাসলাইন বিস্ফোরণে শিশুর মৃত্যু, তিন জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক

রাজধানীর বংশালের একটি বাসায় গ্যাসলাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় দেয়াল চাপা পড়ে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশুটির মা-বাবাসহ পরিবারের আরো তিন সদস্যকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিস নিয়ন্ত্রণ কক্ষের কর্মকর্তা লিমা খনম এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, বংশালের শামছাবাদ জুম্মন কমিউনিটি সেন্টারের পাশে একটি দোতলা বাড়ির নিচ তলায় এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণের ধাক্কায় ভবনের নিচতলার দেয়াল ধসে পড়ে। তাতে চাপা পড়ে শিশুটি মারা যায়। মৃত শিশুটির নাম ময়নুল, বয়স ১ বছর। তার বাবা জাবেদ (৩৫), মা শিউলি (২৫) ও বোন জান্নাতকে (৪) শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে এবং বাকিদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, জাবেদের শরীরের ৩০ শতাংশ, শিউলির ৭০ শতাংশ এবং জান্নাতের ৬০ শতাংশ পুড়ে গেছে। সবার অবস্থা-ই আশঙ্কাজনক।

বংশাল থানার ওসি শাহীন ফকির বলেন, ওই বাসার গ্যাসলাইনের সমস্যা ছিল। কয়েকদিন আগেও একবার ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু আজ সকালে সেখানে বিস্ফোরণ ঘটে। গ্যাসের চাপে অথবা চুলা জ্বালাতে গিয়ে জমে থাকা গ্যাসে এটা হতে পারে। বিস্ফোরণে শুধু ওই ভবনের নিচতলাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। একই লাইনে থাকা আশপাশের বাসার গ্যাসের পাইপও বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। তাতে ওই ভবনগুলোর দেয়ালও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।