ধর্ষণ নিয়ে মন্তব্য করে সমালোচিত ইমরান খান

ধর্ষণের জন্য অশ্লীলতাকে দায়ী করায় টুইটারে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে ব্যাপক সমালোচনা, হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে। সম্প্রতি পাকিস্তানে ধর্ষণ, যৌন সহিংসতার মূল কারণ বলে অশ্লীলতাকে দায়ী করেন ইমরান। জনগণের সঙ্গে এক কথোপকথনের সেশনে একজন কলার জানতে চান, দেশে যৌন সহিংসতার ঝুঁকি মোকাবিলার জন্য তার সরকার কি ব্যবস্থা নিয়েছে। এর জবাবে সমাজে কিভাবে যৌন আগ্রাসন অশ্লীলতার সঙ্গে সমানুপাতে চলছে সেই দৃষ্টিভঙ্গি শেয়ার করেন ইমরান। তিনি বলেন, যে সমাজে অশ্লীলতার প্রাদুর্ভাব থাকে, সেখানে তার পরিণতিও থাকে। তিনি আরো বলেন, মুসলিম ধর্মে শরীর ঢেকে রেখে মর্যাদাকে রক্ষার কথা বলা হয়েছে। তা দিয়ে এমন প্রবণতাকে বন্ধ করা যায়। কিন্ত এমন ইচ্ছাশক্তি সবার নেই।

ইমরান খানের এমন মন্তব্যের পর সামাজিক যোগাযোগ মিডিয়ায় ক্ষোভ ঝরে পড়ে।

এর আগে স্থানীয় এক টিভি চ্যানেলকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ইমরান খান বলেন, বিশ্বে দ্রুত গতিতে বাড়ছে অশ্লীলতা। বিশ্নের উন্নত দেশগুলোর তুলনায় আমাদের একটা এডভান্টেজ আছে। আমাদের আছে পারিবারিক বন্ধন। সেখানে অশ্লীলতার স্পর্শ নেই। বলিউডের সিনেমার দিকে তাকান। বর্তানে যা হচ্ছে তার সঙ্গে ৪০ বছর আগের মধ্যে পার্থক্য দেখুন। সেখানে অশ্লীলতা এমন মাত্রায় পৌঁছেছে যে, দিল্লি এখন বিশ্বে ধর্ষণের রাজধানী হয়ে উঠেছে।

SHARE